সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৭:১১ অপরাহ্ন

খবরের শিরোনাম:
বিজয়নগরে মাদক সহ ২ ব্যবসায়ী আটক। বিজয়নগরে ইয়াবাসহ ব্যবসায়ী আটক বিজয়নগরে ঈদে মিলাদুন্নবী  উপলক্ষে জশনে জুলুস অনুষ্ঠিত । বিজয়নগরে রাস্তা পারা পারের সময় সাফিয়া নিহত, বিজয়নগরে দুই ভাইয়ের বিরোধ মামলায় জড়ানো হচ্ছে নিরীহ মানুষদের, সাংবাদিক সম্মেলন এলাকাবাসীর। ব্রাক্ষনবাড়িয়ার বিজয়নগরে স্কুলের জায়গা রক্ষার দাবীতে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্টিত বিজয়নগরে আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা। বিজয়নগরে কন্টেইনারবাহী লরি ও তেলের ট্যাংক লরি মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত ২। বিজয়নগরে মাদক সহ ২ ব্যবসায়ী গ্রেফতার। বিজয়নগরে উপজেলা ছাত্রদলের (ভারপ্রাপ্ত) আহ্বায়কের বিতর্কিত মন্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিন্দার ঝড়।

বিজয়নগরে প্রধান শিক্ষক কর্তৃক ঘুষ প্রদানের অভিযোগ ।


ব্রাহামণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলায় মির্জাপুর সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়ের (ভারপ্রাপ্ত ) প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ঘুষ প্রদানের অভিযোগ পাওয়া যায় ।

জানাযায়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে প্রায় ৮ লক্ষ টাকা ব্যয়ে মির্জাপুর সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়ের সীমানা দেওয়াল নির্মাণের কন্ট্রাক পায় জনৈক আ: ছাত্তার ।

দীর্ঘ ১ মাস পূর্বে দেওয়ালের কাজ আরম্ভ করে । দেওয়ালের কাজে শুরু থেকেই নিম্ন মানের সামগ্রী দিয়ে শুরু করে । কন্ট্রাক্টর জেলা সদরের বাসিন্দা হওয়ায় প্রভাব খাটিয়ে নিম্ন মানের সামগ্রী দিয়ে কাজ করতে থাকলে স্থানীয় জনগণের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয় ।

এলাকার জনসাধারণ মৌখিক ভাবে উপজেলা সহকারি ইঞ্জিনিয়ার মো: আব্দুর রাজ্জাককে এ বিষয় অবহিত করে , কিন্তু অভিযোগ ,অজ্ঞাত কারণে কোন কাজে না আসায়, প্রবল বাধার মুখে এক পর্যায়ে কাজ বন্ধ রাখতে বাধ্য হয় কন্ট্রাক্টর ।

গত মঙ্গলবার ২৪ নভেম্বর ২০২০ ইং বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা বিভারাণী মজুমদার, গ্রামের অমর দেব নাথের টং দোকানের সামনে এসে প্রেসক্লাব বিজয়নগরের সভাপতি মৃণাল চৌ: লিটনকে ডেকে আনে ।

দোকান মালিক আমর দেবনাথ ও দোকানে থাকা লোকজন ও স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো: রাষ্টু মিয়ার উপস্থিতিতে মৃনাল চৌধুরীর হাতে ৩০০০(তিন হাজার) টাকা তুলে দেয় ও সে জানায় এ টাকার মধ্যে মৃনাল ২০০০ (দুই হাজার) টাকা ও সভাপতি রাষ্টু মিয়া ১০০০ (এক হাজার) টাকা নেওয়ার জন্য ।

টাকার বিষয়ে জানতে চাহিলে শিক্ষিকা জানান , কন্ট্রাক্টারের কাজে যেন বাধা দেওয়া না হয়, কোন রকমে কাজ সারতে পারলেই হয় । এ কথ্য় মৃণাল ও রাষ্টু মিয়া উক্ত টাকা নিতে অস্বিকৃতি জানালে শিক্ষিকা এক প্রকার জোর পূর্বক চাপিয়ে চলে যায়।

পরক্ষণে এ টাকা নিয়ে মৃনাল ও রাষ্টু উপজেলা নির্বাহি অফিসার বিজয়নগরের নিকট হাজির হয়ে বিস্তারিত জানিয়ে উক্ত টাকা জমা দেয় ।

এব্যপারে উপজেলা নির্বাহি অফিসার জনাব কে এম ইয়াসির আরাফাত বলেন ,এব্যপারে আমি অবগত আছি ও উপজেলা সহকারি ইঞ্জিনিয়ার ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সমন্বয়ে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে ।

এব্যপারে উপজেলা সহকারি ইঞ্জিনিয়ার মো: আব্দুর রাজ্জাক বলেন, এ বিষয়ে আমি অবগত আছি ও তদন্ত পূর্বক দ্রæত সময়ের মধ্যে এর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার,জানান দ্রæত সময়ের মধ্যে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে ।
মির্জাপুর সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়ের (ভারপ্রাপ্ত ) প্রধান শিক্ষিকা বিভারাণী মজুমদারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে,কান্না জরানো কন্ঠে বলেন মৃনালকে আমি টাকা দিয়েছি কিন্তু টাকা আমার নায়।

মৃনাল চৌধুরী লিটন বলন , নিম্ন মানের সামগ্রী দিয়ে কাজ কাজ করার জন্য প্রধান শিক্ষক আমাকে যে টাকা দিয়েছে তাহা নি:সন্দেহে ন্যাক্কার জনক ঘটনা আমি এর নিন্দা ও প্রয়োজনীয় গ্রহণের দাবি জানাই ।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ত সংরক্ষিত bijoynagartv ওয়েবসাইটের কোন তথ্য কপি করা আইনত দণ্ডনীয়।
Developer: DesigUs
error: ওয়েবসাইটের তথ্য কপি করা আইনত দণ্ডনীয়