চাঁদা দাবির অভিযোগে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আটক

চাঁদা দাবির অভিযোগে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আটক

বিশেষ রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ কামাল ভূইয়াকে চাঁদা দাবীর মামলায় আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ওই ইউনিয়নের নিজ বাড়ি টনকী গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়।

শুক্রবার (৫ জুলাই) সকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলা হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। এরআগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় টনকী গ্রামের মৃত আমির উল্লাহ ভূইয়ার ছেলে মোঃ মুজিবুর রহমান শাহীন বাদী হয়ে কামাল ভূইয়াসহ ছয়জনকে আসামী করে আখাউড়া থানায় মামলা করেন। তবে, কামাল ভূইয়ার পরিবারের দাবী এমন কোন ঘটনা ঘটেনি।

মামলার এজহার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মুজিবুর রহমান (শাহীন) চাকুরীর সুবাদে বহু বছর স্বপরিবারে ঢাকায় থাকতেন। এ সুযোগে কামাল চেয়ারম্যানসহ অন্যান্য বিবাদীরা মুজিবুর রহমান ও তার ভাইদের ভূমি-পুকুর দখল করে রাখে। এনিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। সম্প্রতি মুজিবুর রহমান নিজ বাড়িতে এসে বসবাস শুরু করেছে। দখলকৃত ভূমি ছেড়ে দিতে বলায় শাহীনের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে বিবাদীরা। বৃহস্পতিবার বিকালে শাহীন বিরোধপূর্ণ ভূমি দেখতে গেলে খবর পেয়ে কামাল ভূইয়াসহ অপর বিবাদীরা এসে শাহীনের উপর হামলা করে মারধর করে। শোর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এসে শাহীনকে উদ্ধার করে। এসময় জায়গা ফেরত নিতে হলে কামাল ভূইয়াকে ৫০ লক্ষ টাকা চাঁদা দিতে হবে অভিযোগ করা হয়।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে কামাল ভূইয়ার আইনজীবি বলেন, এমন কোন ঘটনা ঘটেনি। কামাল ভূইয়া ৪ জুলাই বিকালের ট্রেনে চট্টগ্রাম থেকে আখাউড়ায় এসেছেন।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে আখাউড়া থানার ওসি মোঃ মহিউদ্দিন বলেন, কামাল ভূইয়াকে চাঁদাবাজির মামলায় আটক করে শুক্রবার সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এ মামলায় আর কাউকে আটক করা যায়নি।

ট্যাগ :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

বিজয়নগরে চুরির অপবাদে ১-নারীকে নির্যাতনের দায়ে-২ ইউপি সদস্য গ্রেফতার

চাঁদা দাবির অভিযোগে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আটক

আপডেট টাইম : ০২:৩২:৪৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ জুলাই ২০২৪

চাঁদা দাবির অভিযোগে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আটক

বিশেষ রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ কামাল ভূইয়াকে চাঁদা দাবীর মামলায় আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ওই ইউনিয়নের নিজ বাড়ি টনকী গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়।

শুক্রবার (৫ জুলাই) সকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলা হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। এরআগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় টনকী গ্রামের মৃত আমির উল্লাহ ভূইয়ার ছেলে মোঃ মুজিবুর রহমান শাহীন বাদী হয়ে কামাল ভূইয়াসহ ছয়জনকে আসামী করে আখাউড়া থানায় মামলা করেন। তবে, কামাল ভূইয়ার পরিবারের দাবী এমন কোন ঘটনা ঘটেনি।

মামলার এজহার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মুজিবুর রহমান (শাহীন) চাকুরীর সুবাদে বহু বছর স্বপরিবারে ঢাকায় থাকতেন। এ সুযোগে কামাল চেয়ারম্যানসহ অন্যান্য বিবাদীরা মুজিবুর রহমান ও তার ভাইদের ভূমি-পুকুর দখল করে রাখে। এনিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। সম্প্রতি মুজিবুর রহমান নিজ বাড়িতে এসে বসবাস শুরু করেছে। দখলকৃত ভূমি ছেড়ে দিতে বলায় শাহীনের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে বিবাদীরা। বৃহস্পতিবার বিকালে শাহীন বিরোধপূর্ণ ভূমি দেখতে গেলে খবর পেয়ে কামাল ভূইয়াসহ অপর বিবাদীরা এসে শাহীনের উপর হামলা করে মারধর করে। শোর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এসে শাহীনকে উদ্ধার করে। এসময় জায়গা ফেরত নিতে হলে কামাল ভূইয়াকে ৫০ লক্ষ টাকা চাঁদা দিতে হবে অভিযোগ করা হয়।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে কামাল ভূইয়ার আইনজীবি বলেন, এমন কোন ঘটনা ঘটেনি। কামাল ভূইয়া ৪ জুলাই বিকালের ট্রেনে চট্টগ্রাম থেকে আখাউড়ায় এসেছেন।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে আখাউড়া থানার ওসি মোঃ মহিউদ্দিন বলেন, কামাল ভূইয়াকে চাঁদাবাজির মামলায় আটক করে শুক্রবার সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এ মামলায় আর কাউকে আটক করা যায়নি।